গঙ্গার জল কমতেই শুরু ভাঙন, ভিটেমাটি হারাবার আশঙ্কা

262

ফরাক্কা: গঙ্গার জল কমতেই ফের ভাঙন শুরু হলো সামশেরগঞ্জের ধানঘরা এলাকাজুড়ে। শুক্রবার থেকেই শুরু হওয়া ভাঙন ক্রমশ বাড়ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। গতবার ভাঙনের জেরে বিঘের পর বিঘে চাষের জমি, আম লিচু বাগান তলিয়ে গিয়েছিল। আজও সেখানে অনেকে ত্রিপল খাটিয়ে বাস করছেন। প্রশাসন পুনর্বাসনের কথা বললেও কথা রাখেনি। এহেন পরিস্থিতিতে ফের ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় কার্যত দিশাহারা এলাকার মানুষেরা।

গঙ্গার ভাঙন গিলে নিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা গুলেনুর বেওয়ার বাড়ি। এখন মেয়ের বাড়িতে থাকেন তিনি। এবার ভাঙনে মেয়ের বাড়িও বিপন্ন হতে বসেছে। গুলেনুর জানান, আশঙ্কা ছিল জল কমলে ফের ভাঙন শুরু হবে। প্রশাসনকে জানানোও হয়েছিল, কিন্তু কোনও ফল হয়নি। এলাকার ভাঙন দুর্গত মানুষদের দাবি, পাকাপাকিভাবে পাথর বা কংক্রিটের কাজ না করা হলে ভাঙন রোধের নামে শুধু অর্থ অপচয় হবে।

- Advertisement -

ধানঘরা এলাকার বাসিন্দা মকবুল শেখ, কেতাবউদ্দিন শেখদের কথায়, ২০২০ সাল থেকে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে রাজনৈতিক দলগুলো একে অপরের উপর দায় চাপায়। ক্ষতি হয় মানুষের। ধানঘরাতে ফের ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় চিন্তিত নিমতিতা পঞ্চায়েতের প্রধান বিউটি হালদার। বিডিও এবং সেচ দপ্তরকে বিষয়টি জানিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।