জল থৈ থৈ অঙ্গনওয়ারি, কাঠগড়ায় ঠিকাদার

154

দীপঙ্কর মিত্র, রায়গঞ্জ: জল থৈ থৈ অঙ্গনওয়ারি চত্বর। প্রায় ৬ মাস যাবৎ অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রে ঢুকতে পারছেন না কর্মীরা। এই পরিস্থিতিতে মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে চলছে শিশুদের প্রাপ্য মিড ডে মিলের সামগ্রী বিতরণের কাজ। অভিযোগ, অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রটি নির্মাণের সময় প্রবেশ পথের মাটি কাটা হলেও পরে তা ভরাট করা হয়নি। ফলে, অল্প বৃষ্টিতেই জল জমে থাকছে সেখানে। ঘটনায় কাঠগড়ায় বরাতপ্রাপ্ত ঠিকাদার।

রায়গঞ্জ ব্লকের গৌরি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিশাহার অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রটি গড়ে তোলার জন্য জমিদান করেন স্থানীয় সিদ্দিক আলি। প্রায় এক বছর আগে তৈরি হয় কেন্দ্রটি। বরাত পেয়েছিলেন গৌরি গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য তথা ঠিকাদার কমল সিনহা। অভিযোগ, ঠিকাদার জমিদাতার জমি অর্থাৎ অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রে যাতায়াতের পথ থকে মাটি কেটে কেন্দ্রেটি ভরাট করেছিলেন। নির্মাণ কাজ শেষে তা ভরাট করে দেওয়ার কথা থাকলেও বাস্তবে তা না হওয়ায় সমস্যা বাড়ছে।

- Advertisement -

সিদ্দিক আলির অভিযোগ, কেউ কোনও কথা শুনছে না। যাতায়াতের রাস্তা থেকে মাটি কেটে নেওয়ায় এক হাটু জল জমে আছে। অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রে ঢোকা সম্ভব হচ্ছে না। এখন ঠিকাদার অজুহাত দেখিয়ে তাড়িয়ে দিচ্ছেন।

গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান তথা বিশাহার সংসদের গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য তৈয়ব আলি গ্রামবাসীদের সমস্যার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। অন্যদিকে, পঞ্চায়েতের সদস্য তথা অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রের বরাতপ্রাপ্ত ঠিকাদার কমল সিনহা স্পষ্ট জানান, কাজ করে দেওয়া হয়েছে। আর কোনও দায়িত্ব নেই।