ভোটের আগে জল প্রকল্পে ফায়দা লুটবে তৃণমূল, দাবি বিজেপির

414

সুভাষ বর্মন, শালকুমারহাট: আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের পাতলাখাওয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ৯টি পঞ্চায়েত এলাকায় পানীয় জলের সংকট মিটতে চলেছে। দীর্ঘ দাবির পর বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর প্রচেষ্টায় রাজ্যের জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তর(পিএইচই) পাতলাখাওয়ায় পানীয় জল প্রকল্পের জন্য প্রায় দু’কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। এই প্রকল্পে একটি রিজার্ভার, কয়েকটি পাম্প হাউস ও বিস্তীর্ণ এলাকায় জলের পাইপলাইন তৈরি হবে। প্রায় দশ হাজার মানুষ এই পানীয় জলের পরিষেবা পেতে পারেন। এখন জোরকদমে চলছে প্রকল্পের কাজ।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই জল প্রকল্পে তৃণমূল কংগ্রেস ফায়দা লুটতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বিজেপির দাবি, এসব ভোটের চমক। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের পালটা দাবি, এসব উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সঙ্গে ভোটের কোনও সম্পর্ক নেই। এদিকে পিএইচই দপ্তর জানিয়েছে, আগামী ছয় মাসের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

- Advertisement -

আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের ৯টি গ্রাম বিশিষ্ট পাতলাখাওয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর সিমলাবাড়ি, পূর্ব সিমলাবাড়ি, পশ্চিম সিমলাবাড়ি, পাতলাখাওয়া মৌজার ১২/৩৫, ১২/৩৬ এবং ১২/৩৭ বুথের গ্রামগুলি চিলাপাতা বনাঞ্চলের পাশে। এই গ্রামগুলির প্রায় দশ হাজার মানুষ পানীয় জলের তীব্র সংকটে রয়েছেন। তাঁদের বাধ্য হয়ে নলকূপের দূষিত জল খেতে হয়। এইসব এলাকার একটি হাইস্কুল সহ ৪-৫টি প্রাইমারি স্কুলেও বিশুদ্ধ পানীয় জলের অভাব রয়েছে। গত বছর ‘আপনার পঞ্চায়েতে প্রশাসন’ ও তৃণমূল কংগ্রেসের ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচিতে বারবার নলবাহিত পানীয় জলের দাবি জানান বাসিন্দারা। বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীও এখানে জল প্রকল্পের প্রতিশ্রুতি দেন। দীর্ঘ টালবাহানার পর সম্প্রতি পাতলাখাওয়ার জল প্রকল্পের জন্য অর্থ বরাদ্দ করে পিএইচই। বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর দাবি, তাঁর প্রচেষ্টায় এই জল প্রকল্পের জন্য রাজ্য পিএইচই দপ্তর থেকে অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ায় এলাকার মানুষ খুশি।

এ প্রসঙ্গে পিএইচই-র আলিপুরদুয়ার জেলার এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত ধর বলেন, ‘এই প্রকল্পে একটি রিজার্ভার, দুটি পাম্প হাউস ও জলের পাইপলাইন তৈরি হবে। প্রায় দু’কোটি টাকা বরাদ্দে এই কাজগুলি হবে। প্রকল্পের কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।’ কাজ শুরু হওয়ায় বাসিন্দারা খুশি।

বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী বলেন, ‘বাসিন্দাদের দাবি মেনে বিধানসভায় বারবার বলার পর পাতলাখাওয়ায় জল প্রকল্পের জন্য চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে দু’কোটি টাকা বরাদ্দ করে পিএইচই। এই প্রকল্পে গোটা পাতলাখাওয়া অঞ্চলের মানুষ জল পাবেন।

এদিকে এই জল প্রকল্প নিয়ে রাজনৈতিক তর্জাও শুরু হয়েছে। বিজেপির জেলা সহ সভাপতি জয়ন্ত রায় বলেন, ‘এসব ফায়দা লোটার জন্য ভোটের চমক। তবে মানুষ তৃণমূল থেকে দূরে সরে গিয়েছে। তাই তড়িঘড়ি প্রকল্প শুরু করলেও তা কাজে আসবে না।’ পালটা সৌরভ চক্রবর্তী বলেন, ‘স্বাধীনতার পর প্রথম পাতলাখাওয়ার মানুষ জল পেতে চলেছেন। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী উন্নয়নকে প্রাধান্য দেন। তাই ধারাবাহিক উন্নয়ন চলছে। ভোটের সঙ্গে জল প্রকল্পের কোনও সম্পর্ক নেই। বিজেপির সাংসদ এক বছরে কোনও উন্নয়ন করতে পারেননি।’