দেড় বছরেও জলাধার তৈরির কাজ শেষ হয়নি শীতলকুচিতে

328

মনোজ বর্মন,  শীতলকুচি  :  কোচবিহার জেলাপরিষদের তহবিল থেকে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা খরচ করে শীতলকুচি ব্লকের হরিণকুচি, পাগলাপির, গোঁসাইরহাট, ভাবেরহাট প্রভৃতি বাজারে পানীয় জল  সরবরাহের জন্য জলাধার তৈরি করা হচ্ছে। কিন্তু দেড় বছর আগে কাজ শুরু হলেও ঠিকাদারি সংস্থা এখনও কাজ শেষ করতে পারেনি। ফলে কোনো জায়গাতেই জলাধার তৈরি হয়নি। কবে এই জলাধার থেকে পানীয় জল পাবেন, তা জানেন না বাসিন্দারা।  দীর্ঘ দিন ধরে  সরকারি কাজে  এভাবে ঢিলেমি চলার কারণে স্বভাবতই  ক্ষোভে ফুঁসছেন  ওই এলাকার বাসিন্দারা। দ্রুত কাজ শেষ করার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

হরিণকুচি এলাকার বাসিন্দা মজরুল হক মিয়াঁ বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই হরিণকুচি বাজারে পানীয় জলের দাবি ছিল। আমাদের দাবি মেনে কোচবিহার জেলাপরিষদের তরফে জলাধার তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু  দেড় বছর ধরে জলাধার তৈরির কাজ চললেও এখনও তা শেষ হয়নি। ফলে এলাকাবাসী এখনও পানীয় জল পাননি। ঠিকাদারি সংস্থা কাজে ঢিলেমি করছে। খুব শীঘ্রই কাজ শেষ করার দাবি জানাই। এলাকার অন্য বাসিন্দারাও  দ্রুত জলাধারের কাজ শেষ করার জন্য জোরালো দাবি তুলেছেন।

- Advertisement -

স্থানীয় বিজেপির শ্রমিক সংগঠনের নেতা পবিত্র বর্মন বলেন, গোঁসাইরহাট বাজারেও একই অবস্থা। কবে ব্যবসায়ীরা পানীয় জল পাবেন, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। ঠিকাদারি সংস্থা ইচ্ছেমতো কাজ করছে। শীঘ্র কাজ শেষ করার দাবি জানাচ্ছি। এ বিষয়ে স্থানীয় জেলাপরিষদ সদস্য তথা জেলাপরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ অশোককুমার রায় বলেন, কেন কাজ শেষ করতে দেরি হচ্ছে, সে বিষয়ে ঠিকাদারি সংস্থার সঙ্গে কথা বলা হবে।  ঠিকাদারি সংস্থার তরফে বিপুল সরকার  বলেন, মাঝে লোকসভা নির্বাচন থাকায় কাজ বন্ধ ছিল। তবে আগামী এক মাসের মধ্যেই সমস্ত কাজ শেষ করা সম্ভব  হবে।