আজও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যে

84
আয়ুষ্মান চক্রবর্তী ফাইল চিত্র

কলকাতা: গত কয়েকদিনের প্রবল ঝড়বৃষ্টির ফলে রাজ্যে তাপমাত্রা অনেকটাই কমে গিয়েছে। যার জেরে গ্রীষ্মের তীব্র দাবদাহ থেকে কিছুটা সস্তি পেয়েছে বঙ্গবাসী। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আজও রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ১০ মে পর্যন্ত রাজ্যে বৃষ্টি থাকবে। উত্তরের জেলাগুলিতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করছে হাওয়া অফিস। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, মালদা, দুই দিনাজপুরে বৃষ্টির সঙ্গে ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিমি বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। শুক্রবার সকালের দিকে উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু এলাকায় হালকা বৃষ্টি ছিল। তবে বেলা বাড়তেই রোদ উঠতে দেখা গিয়েছে আকাশে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, এদিন বিকেলের পরই বজ্রবিদ্যুত সহ বৃষ্টি নামতে পারে। কলকাতা সহ উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, দুই বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়াতেও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ৪-৫ দিনে আবহাওয়ার বিশেষ কোনও পরিবর্তন ঘটবে না বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

- Advertisement -

এদিন শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৫ ডিগ্রির কাছাকাছি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৫ ডিগ্রির কাছাকাছি। বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের চেয়ে ১ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৫ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের চেয়ে ২ ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন পরিমাণ যথাক্রমে ৬০ এবং ৫৭ শতাংশ ছিল। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গের ওপর থেকে পঞ্জাব পর্যন্ত একটি নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি, পশ্চিমবঙ্গের ওপর দিয়ে আরও একটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছে।