উত্তরবঙ্গে টানা ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস, ৬ রাজ্যে অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি

1383

কলকাতা: উত্তরবঙ্গে টানা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। এমনটাই জানাল হাওয়া অফিস। বঙ্গোপসাগর থেকে আসা প্রচুর জলীয় বাষ্পের প্রভাবে অসম, মেঘালয় সিকিম ও উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, মৌসুমী অক্ষরেখার পূর্বভাগ সিকিম ও উত্তরবঙ্গের ওপর অবস্থান করছে। এর জেরে যেমন বৃষ্টি হচ্ছে তেমনি প্রচুর জলীয় বাষ্প সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে উঠে আসছে। এর প্রভাবে আগামী পাঁচদিন উত্তরবঙ্গের আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টায় উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ে। ধসের সতর্কতাও জারি করা হয়েছে। ভারী বৃষ্টি হবে দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি ও উত্তর দিনাজপুরেও। রবিবারও দার্জিলিং সহ পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী বৃষ্টি হতে পারে বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, পুরুলিয়া, বীরভূম ও মুর্শিদাবাদেও।

অন্যদিকে, মহারাষ্ট্র, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, বিহার এই ছয় রাজ্যে আগামী পাঁচদিন অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্যগুলির প্রশাসনকেও। ২ জুলাই থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত রাজ্যগুলিতে অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, পশ্চিম উপকূল বরাবর ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া মহারাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ ও গুজরাটে ৬ জুলাই পর্যন্ত লাগাতার ভারী বৃষ্টি চলবে। কঙ্কন উপকূল, গোয়া ও মধ্য মহারাষ্ট্রেও ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ৩ ও ৪ জুলাই পর্যন্ত এই জায়গাগুলিতে টানা বৃষ্টি চলবে।

জলীয় বাষ্পপূর্ণ বাতাস অক্ষরেখার জেরে দ্রুত ঘনীভূত হয়ে উল্লম্ব মেঘ তৈরি করেছে, তার জেরেই গুজরাট ও মহারাষ্ট্রের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে বৃষ্টির সম্ভবানা রয়েছে। পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশের দিকে এগিয়ে যাবে এই ঘণীভূত মেঘ। দুর্যোগের পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে বাড়বে ঝোড়ো হাওয়া। ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে বিহারেও।