একুশের নির্বাচনে সম্মুখ সমরে গুরু-শিষ্য

81

রায়গঞ্জ: গুরু-শিষ্য লড়াইয়ে মুখোমুখি দুই প্রজন্ম। একসময়ের কংগ্রেসের মোহিত সেনগুপ্তের সহযোদ্ধা হিসেবে বিশেষ পরিচিত মুখ ছিলেন কানাইয়ালাল আগরওয়াল। যদিও একুশের নির্বাচনি ময়দানে সম্মুখ সমরে তাঁরা। একজন সংযুক্ত মোর্চা কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে লড়াইয়ের ময়দানে তো ওপরজন তৃণমূলে।

মৃদুভাষী কংগ্রেসের জেলা সভাপতি মোহিত সেনগুপ্তই ছিল অনুপ্রেরক। মুহিত সেনগুপ্তকে দেখেই একসময় কোর্টে প্র্যাকটিস ছেড়ে কংগ্রেস রাজনীতিতে শামিল হয়েছিলেন তিনি। ১৬-র বিধানসভা কানাইয়ালাল কংগ্রেসের টিকিটে ইসলামপুর থেকে জয়লাভ করে বিধায়ক হয়েছিলেন। তার কিছুদিন বাদেই কংগ্রেসের সঙ্গ ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি তৃণমূল প্রার্থী। তাঁর বিপরীতে একদা রাজনীতিক গুরু মোহিত সেনগুপ্ত।

- Advertisement -

মোহিত সেনগুপ্তের পর্তি সম্মান জানিয়েই কানাইয়ালাল আগারওয়াল হালকা মেজাজে বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে মোহিতবাবু সম্মানীয়। তবে, রায়গঞ্জের উন্নয়নের জন্য কিছুই করেননি তিনি। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ, রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করেছেন।’

জোটের প্রার্থী মোহিতবাবু বলেন, ‘জোট প্রার্থী আমি। ফলে মানুষ আমার সঙ্গেই থাকবেন।’