দেশ পাল্টালে যে পেটও পাল্টে যায় তা এতদিন জানা ছিল না। ঘাবড়ে গেলেন বুঝি? আচ্ছা আপনি কি দীর্ঘদিন বিদেশে কাটিয়েছেন? লক্ষ্য করেছেন কি দীর্ঘদিন বাইরে থাকার ফলে আপনার স্বাস্থ্যে কী কী পরিবর্তন ঘটেছে? অথবা আপনার এমন কোনও বন্ধুকে দেখেছেন কি যিনি বহুদিন আমেরিকায কাটিযে খুব মোটা হযে গিয়েছেন? অথচ আগে তাঁর চেহারা মোটেই এরকম ছিল না। এটা ভাবার কিন্তু কোনও কারণ নেই যে তাঁদের খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন এসেছে বলে কিংবা সারাদিনে তাঁরা প্রচুর ক্যালোরি খাচ্ছেন বলে এত মোটা হয়েছেন। অন্তত বিজ্ঞানীরা তো সেরকম বলছেন না।

তাঁরা বলছেন, আমেরিকায আসার সমযে অনেকেরই মেদহীন চেহারা থাকে। কিন্তু কযে দশক এখানে কাটালেই তাঁরা স্থলতার দিকে ঝুঁকতে শুরু করেন। আর এর কারণ সম্পূর্ণ অন্য। আমাদের পাচনতন্ত্রে যে জীবাণুগুলো থাকে সেগুলো পালটে যাওযার ফলেই এই ঘটনা ঘটে। নিশ্চযই জানেন, আমাদের পাচনতন্ত্রে অতি ক্ষুদ্র অজস্র জীবাণু থাকে, যারা খাবার হজম থেকে শুরু করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো, সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করা, এরকম বহু কিছুতে সাহায্য করে। আণুবীক্ষণিক এই জীবগুলোকে খালি চোখে দেখাই যায না। সুস্বাস্থ্যের জন্য এদের ভমিকা বিরাট। বিজ্ঞানীদের মতে, আমাদের শরীরের বেশরভাগ দীর্ঘস্থাযী অসুখের কারণ হল পাচনতন্ত্রের জীবাণুর পরিবর্তন।

মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালযে পরীক্ষাগারে বিজ্ঞানীরা এই বিষযে সম্প্রতি গবেষণা চালাচ্ছেন। উন্নযনশীল দেশ থেকে আমেরিকায গিযে বসবাস করা ব্যক্তিদের পাচনতন্ত্রের জীবাণুর উপর তাঁরা গবেষণা করছেন।