দেশের কথা বলে লভলিনাকে উত্তেজিত করেন কোচ

টোকিও : গোটা দেশ তোমার দিকে তাকিয়ে আছে।

কোয়ার্টার ফাইনালে লভলিনা বরগোহাইঁকে এই কথা বলেই প্রেরণা দিয়েছিলেন কোচ রাফায়েল্লে বার্গামেস্কো। ভারতের মহিলা বক্সিং দলের এই প্রশিক্ষকের মতে, প্রতিপক্ষ কঠিন হলেও সেমিফাইনালে চমক দেখাতে পারেন অসমের গোলাঘাটের এই মেয়ে।

- Advertisement -

লভলিনার হাত ধরে টোকিওয় একটি পদক নিশ্চিত করে ফেলেছে ভারত। ৪ অগাস্ট তুরস্কের বুসেনাজ সুরমেনেলির বিরুদ্ধে সেমিফাইনালের পর পদকের রং অনেকটা স্পষ্ট হবে। ২০১৯ সালে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়া বুসেনাজ বেশ কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে সেই আসরেই ব্রোঞ্জ পাওয়া লভলিনার ওপর ভরসা করছেন কোচ রাফায়েল্লে। তাঁর কথায়, এটা অলিম্পিক। এখানে অনেক কিছুই হতে পারে। প্রতিপক্ষ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। তবে এখনই ভবিষ্যদ্বানী করার কোনও সুযোগ নেই।

কোয়ার্টারের লড়াই নিয়ে রাফায়েল্লে বলেন, লভলিনা নিজের পরিবার ও দেশবাসীকে খুবই ভালোবাসে। তাই সেদিন ওকে উত্তজিত করার জন্য আমি বলেছিলাম, গোটা দেশ তোমার দিকে তাকিয়ে আছে। এবার দেখ তুমি কী করবে! ও অন্যদিকে তুলনায় বেশ শান্ত হয়ে ছিল। ও যেকোনও মূল্যে জিততে চেয়েছিল। তিনি জানিয়েছেন, ম্যাচে কাউন্টার অ্যাটাকের স্ট্র‌্যাটেজি নেওয়া হয়েছিল। লভলিনা তা দারুণভাবে অনুসরণ করেছেন। ফলে প্ল্যান কাজে লেগেছে।

এর আগে ভারতীয় বক্সারদের মধ্যে বিজেন্দর সিং ও এমসি মেরি কম অলিম্পিকে পদক জিতেছেন। দুজনেই অবশ্য ব্রোঞ্জ জিতেছেন। ফলে লভলিনার সামনে তাঁদের ছাপিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। কোয়ার্টারের লড়াইয়ে পর মেরি আলাদাভাবে কথা বলেছেন লভলিনার সঙ্গে। কোচ রাফায়েল্লের কথায়, মেরি আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ওকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে। তারপর একটা ঘরে আলাদাভাবে ওর সঙ্গে কথাও বলেছে। ছাত্রীর সাফল্যে খুশি রাফায়েল্লা।

অভিনব বিন্দ্রা ছাড়া কোনও ভারতীয়ই অলিম্পিকে ব্যক্তিগত ইভেন্টে সোনা পাননি। লভলিনা পাবেন কি না তা অনেকটাই স্পষ্ট হয়ে যাবে ৪ অগাস্টের পর।