ভোপাল, ১৮ মেঃ এক মহিলার নগ্ন দেহ উদ্ধার হল। ভোপালের অশোক নগরে ভাড়া বাড়িতে স্বামীর সঙ্গে থাকতেন বছর ৩৫ এর ওই মহিলা। তাঁকে ধর্ষণ করে গোপনাঙ্গে বিয়ারের বোতল ঢুকিয়ে দেওয়া হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার ওই ঘর থেকে পচা গন্ধ পান এলাবাসী। এরপর খবর দেওয়া হয় থানায়। দরজা বন্ধ থাকায় দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে পুলিশ। সামনেই পড়ে ছিল মহিলার নগ্ন দেহ। শরীরের বিভিন্ন অংশে পচন ধরেছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, ধর্ষণ করে তিন চারদিন আগেই খুন করে ফেলে রাখা হয়েছে ওই মহিলাকে। তাঁর গোপনাঙ্গে মিলেছে বিয়ারের বোতলের টুকরো। রিপোর্টে প্রকাশ, তরুণীটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। গোপনাঙ্গে অন্তত দুটি কাচের বোতল ঢোকানো হয়েছিল। মাথার পেছনেও মিলেছে চোটের আঘাত। প্রচন্ড রক্তপাতে মৃত্যু হয়েছে তাঁর।

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তির এটি চতুর্থ স্ত্রী। প্রথম দুই স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যায়। তৃতীয় স্ত্রী রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ। প্রতিবেশীরা জানান, ওই ব্যক্তি প্রতিবেশীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রযেছে বলে স্ত্রীকে সন্দেহ করত। মৃত মহিলার স্বামী নিখোঁজ। ওই প্রতিবেশীরও কোনো খোঁজ নেই।

একটি খুনের মামলা রুজু করেছে পুলিশ। নিখোঁজদের খোঁজে চলছে তল্লাশি।