নয়াদিল্লি, ১২ মার্চঃ উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে ১৮ বছরের মেয়ের হাতে খুন হলেন এক মহিলা। মৃতার স্বামীর অভিযোগ, মেয়ের সমকামী সম্পর্কে আপত্তি করায় খুন হতে হয়েছে তাঁকে। ঘটনায় স্থানীয় থানায় মেয়ের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার স্বামী। অভিযুক্তর খোঁজ করছে পুলিশ।

চলতি মাসের ৯ তারিখের ঘটনা। বাড়িতে ছিলেন শুধু মহিলা ও তাঁর বড় মেয়ে। সেই সময় মেয়েটি লোহার রড দিয়ে তার মাকে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় মেয়েটি। এরপর মহিলার ছোট মেয়ে স্কুল থেকে ফিরে আসে। মাকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় সে। গুরুতর আহত অবস্থায় মহিলাকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। রবিবার সেখানেই মৃত্যু হয় ৩৮ বছর বয়সি ওই মহিলার।

মৃতার স্বামী অভিযোগ, তাঁদের বড় মেয়ে ও তার বছর ৩৫-এর শিক্ষিকার মধ্যে সমকামী সম্পর্ক ছিল। কিন্তু বাড়ির লোকের এতে মত ছিল না। মাস দুয়েক আগে ডিভোর্সি শিক্ষিকার সঙ্গে পালিয়েও ছিল তাঁর মেয়ে। পুলিশের সাহায্যে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়। মাকে মেরে তাঁর মেয়ে শিক্ষিকার বাড়ি গিয়েই লুকিয়েছে বলে অভিযোগ।