এবার সৌমিত্র খাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের বর্ধমানের মহিলার

150

বর্ধমান: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ মহিলাদের সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করার দায়ে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু হল বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁর বিরুদ্ধে। অভিযোগ দায়ের করলেন পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের বাসিন্দা এক মহিলা। বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে বিষ্ণুপুরের সাংসদ তথা বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতির বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও গোটা ঘটনাটাই রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র বলে বিজেপি নেতারা দাবি করেছেন।

পুলিশ ও প্রশাসন সূত্রে খবর, গত বুধবার পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের বেড়ুগ্রামের দিঘিরপাড়ে অনুষ্ঠিত হয় বিজেপির জনসভা। সেই সভায় বক্তব্য রাখতে উঠে বিষ্ণুপুরের সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁর বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করার অভিযোগ ওঠে। তা নিয়ে বেড়ুগ্রাম নিবাসী এক মহিলা শুক্রবার খণ্ডঘোষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে পুলিশ ৫০৪, ৫০৫(১)(বি) ও ৫০৯ ধারায় মামলা রুজু করেছে। এরমধ্যে ৫০৫(১)(বি) ধারাটি জামিন অযোগ্য।

- Advertisement -

পুলিশকে লিখিত অভিযোগে বেড়ুগ্রামের বাসিন্দা মাম্পি বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী এবং মহিলাদের উদ্দেশ্যে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন সৌমিত্র খাঁ। মাম্পির আরও অভিযোগ, মহিলাদের সম্পের্ক অসম্মানজনক মন্তব্য করার পাশাপাশি বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ হিন্দু দেব-দেবী সম্পের্কও কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন। এছাড়াও সংসদের ভাষণেও ছিল সাম্প্রদায়িক উস্কানি।

এবিষয়ে সৌমিত্র খাঁর প্রতিক্রিয়া পাওয়ার জন্য তাঁকে ফোন করা হয়। কিন্ত ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করার চেষ্টা হলেও তা সম্ভব হয়নি। তবে পূর্ব বর্ধমান জেলা বিজেপি সভাপতি সন্দিপ নন্দি জানিয়েছেন, ষড়যন্ত্র করে রাজ্যজুড়ে বিজেপি নেতা ও কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। এক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। তবে, এইসব মিথ্যা মামলা করে বিজেপিকে রোখা যাবে না।