রেলগেটে আটকে গাড়ি, মাঝ রাস্তায় সন্তান প্রসব প্রসূতির

61

বর্ধমান: প্রসব যন্ত্রনা নিয়ে হাসপাতালে যাবার পথে দীর্ঘক্ষণ রেলগেট আটকে পরা গড়িতেই সন্তান প্রসব করলেন এক প্রসুতি। এরপর রেলগেট খুলতেই মা ও সন্তানকে তড়িঘড়ি বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, দু’জনেই সুস্থ রয়েছেন। তবে, এদিনের ঘটনার পরেই নিত্যযাত্রী সহ প্রসূতির পরিবারের সদস্যরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। অন্যদিকে, ফের একবার দাবি উঠল উড়ালপুলের। রবিবার বেলায় ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার বর্ধমান-১ ব্লকের তালিত রেলগেটে।

প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে খবর, বর্ধমান-১ ব্লকের পিলখুড়ি গ্রামের বাসিন্দা মন্দিরা দাস প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা হন। হাসপাতাল যাওয়ার পথে বর্ধমান-সিউড়ি ২(বি) জাতীয় সড়কে হলদি দে পাড়া সংলগ্ন এলাকায় গাড়ি পৌঁছোতেই প্রসব যন্ত্রণা চরমে ওঠে। এই পরিস্থিতিতে কিছু সময়ের জন্য গাড়ি দাঁড় করান চালক। এরপর হাসপাতালের উদ্দেশ্যে গাড়ি রওনা হলেও তালি সংলগ্ন এলাকায় রেলগেটে আটকে পড়ে গাড়ি। দীর্ঘ সময় রেলগেটে আটকে থাকায় প্রসব যন্ত্রণায় কাতর প্রসূতি গাড়িতেই জন্ম দেন সন্তানের।

- Advertisement -

জানাগিয়েছে, বেশ কয়েক বছর হল ২(বি) জাতীয় সড়ক সংলগ্ন পৃথক দু’টি রেললাইন পারাপারের জন্য উড়ালপুল তৈরির পরিকল্পনা গৃহীত হয়েছিল। যদিও তা এখনও অধরা। স্বাভাবিকভাবেই আজও দুর্ভোগের শিকার আমজনতা। অভিযোগ, পূর্বেও দীর্ঘক্ষন রেলগেট বন্ধ থাকায় হাসপাতালে যাওয়ার পথে এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে।

এবিষয়ে পূর্ব রেলের জনসংযোগ আধিকারিক বলেন, ‘তালিত রেলগেটে উড়ালপুল তৈরির কথা জাতীয় সড়ক কতৃপক্ষের। তবে এখনও কেন উড়ালপুল তৈরির কাজ শুরু হয়নি তা খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।’