তুফানগঞ্জে মহিলাকে কুপিয়ে খুন, এলোপাতাড়ি কোপ স্বামীকেও

117

তুফানগঞ্জ: এক মহিলাকে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের মারুগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েতের ভেলাকোপা এলাকায়। স্বামী ও স্ত্রী দুজনেরই ওপর হামলা চলে বলে অভিযোগ। ঘটনায় মৃত্যু হয় বছর ৪৫-এর স্ত্রী জরিনা বিবির। গুরুতর জখম হয়েছেন স্বামী আলি হোসেন। বর্তমানে তিনি কোচবিহার এমজেএন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনায় এক যুবককে আটক করেছে তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে তিনটা নাগাদ ঘরে ঢুকে ওই দম্পতির ওপর হামলা চালায় সশস্ত্র এক দুষ্কৃতী। স্বামী-স্ত্রী দুজনকেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে শুরু করে অভিযুক্ত। সেখান থেকে কোনওরকমে পালিয়ে প্রাণ বাঁচান আলি হোসেন। তাঁর চিৎকারে স্থানীয় বাসিন্দারা সেখানে ছুটে আসেন। এরপরই সেখান থেকে চম্পট দেয় অভিযুক্ত।

- Advertisement -

ঘটনার পরই গুরুতর জখম আলি হোসেন এবং জরিনা বিবিকে উদ্ধার করে কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালে পাঠান স্থানীয়রা। তবে জরিনা বিবিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। সেখানেই চিকিৎসা চলছে স্বামী আলি হোসেনের।

এদিকে, ঘটনাস্থলে যায় তুফানগঞ্জ থানার ওসি রাহুল তালুকদারের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করেন পুলিশ আধিকারীকরা। পাশাপাশি রক্তের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়। এই ঘটনায় এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয়দের একাংশ জানিয়েছেন, চার-পাঁচ মাস আগে এলাকার এক যুবকের সঙ্গে গোরু চড়ানো নিয়ে গণ্ডগোল বাধে জরিনা বিবির। আর এই ঘটনা নিয়ে বারবার আক্রমণের শিকার হন জরিনা। তারই পরিণতি হিসাবে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনুমান করছেন তাঁরা। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে তুফানগঞ্জ পুলিশ।