হাসপাতালের ছাদের চাঙড় ভেঙে জখম চিকিৎসাধীন শিশুর মা

273

জলপাইগুড়ি: হাসপাতালের ছাদের চাঙড় ভেঙে জখম হলেন চিকিৎসাধীন শিশুর মা। শনিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালের শিশু বিভাগে। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই ওয়ার্ডের অন্য শিশুর অভিভাবক এবং আত্মীয়রা।

এদিকে এ বিষয়ে কোনও খবর নেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছে। জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ রমেন্দ্র নাথ প্রামাণিক জানান, এই খবর তাঁর কাছে নেই। তবে খোঁজ নিয়ে দেখবেন।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, রক্তে সংক্রমণের কারণে গত ১৮ জুন একবছরের শিশু পুত্রকে জেলা হাসপাতালের শিশু বিভাগে ভর্তি করান জলপাইগুড়ি শহরের শিল্প সমিতি পাড়ার বাসিন্দা সমীরকুমার বিশ্বাস। ছেলেকে নিয়ে সমীরবাবুর স্ত্রী সঙ্গীতা বিশ্বাস ছিলেন। এদিন দুপুরে শিশু বিভাগের ভেতরের দিকে বারান্দায় থাকা বেসিনে হাত ধোবার জন্য গিয়েছিলেন সঙ্গীতাদেবী। সেই সময় তাঁর ওপর হঠাৎই বারান্দার ছাদের অনেকাংশের চাঙড় খসে পড়ে। এতে জখম হন সঙ্গীতাদেবী। যদিও ঘটনার পরে শিশুটির মার চিকিৎসা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ঘটনাটি জানার পরেই ভেঙে পড়া চাঙড়ের অংশ দ্রুত সরিয়ে ফেলা হয়। ঘটনার পরেই হাসপাতালের বিরুদ্ধে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। শিশু বিভাগের মতো একটা জায়গার পরিকাঠামো ওপর নজরদারির অভাবের কারণেই এই ঘটনা বলে অভিযোগ উঠেছে। শিশুটির বাবা সমীরকুমার বিশ্বাস বলেন, ‘জখম স্ত্রীকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। তবে আমি বিষয়টি জানানোর জন্য হাসপাতাল সুপারের কাছে গিয়েছিলাম। কিন্তু সুপার তখন বেরিয়ে যান। এরপরে বিষয়টি সহকারি সুপারকে জানিয়েছি।’ বিষয়টি নিয়ে থানার পাশাপাশি রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানান সমীরবাবু।