প্রসূতি মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হাসপাতালে উত্তেজনা

232

সংবাদদাতা, বারাসাত: বুধবার রাতে এক প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে উত্তাল হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাত সদর হাসপাতাল চত্বর। উত্তেজিত জনতাকে হঠাতে পুলিশকে দফায় দফায় লাঠিচার্জ করতে হয়। তবে এলাকায় এখনও উত্তেজনা থাকায় কড়া পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে।

রত্না দাস (২৫) নামে ওই গৃহবধূ সন্তান প্রসবের জন্য গতকালই বারাসাত সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। রাতেই তার অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব হওয়ার কথা ছিল। সেইমত রাত ৯টার কিছু পরে ওই গৃহবধূকে লেবার রুমে অস্ত্রোপচারের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু লেবার রুমে নিয়ে যাওয়ার পর অস্ত্রোপচার হওয়ার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়।

- Advertisement -

চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, লেবার রুমেই ওই প্রসূতি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসকেরা সেটা সামাল দিলেও তার কিছুক্ষণ পরেই ফের হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। পরপর দুবার হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ধকল সামলাতে পারেননি ওই প্রসূতি। আর তারই জেরে তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিন সেই খবর জানাজানি হওয়ার পর প্রসূতির পরিবারের সদস্য ও প্রতিবেশীরা ভোরেই হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ ও ভাঙচুর চালাতে শুরু করে। বিশাল পুলিশ বাহিনী বিক্ষোভকারীদের বুঝিয়ে নিরস্ত করতে চাইলেও তাতে তাঁরা ব্যর্থ হন। পরে লাঠি চালিয়ে বিক্ষোভকারীদের হটিয়ে দেয় পুলিশ। লাঠির ঘায়ে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী আহত হয়েছেন।