সাংসারিক কাজে পুরুষের চেয়ে তিন কদম এগিয়ে মহিলারা

407

নয়াদিল্লি : সময়ে অপচয় বা ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর জন্য প্রায়ই নিন্দামন্দ শুনতে হয় অনেক ভারতীয়কে। সাম্প্রতিক একটি সরকারি সমীক্ষা অনুযায়ী, দুপয়সা কামানোর সুযোগ না থাকলে ভারতীয়রা বড় একটা সেদিকে ঘেঁষে না। যদিও নিষ্ফল আড্ডায় কোনও অরুচি নেই। সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, শ্রমের মূল্য না পেলেও সংসারের জোয়াল ছেলেদের চেয়ে তিনগুণ বেশি টানতে হয় মেয়েছের। সংসারের কাজ পুরুষরা দিনে ৯৭ মিনিট করলে, মহিলারা করেন ২৯৯ মিনিট। কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান ও পরিকল্পনা রূপায়ণ মন্ত্রকের ওই সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতের জনসংখ্যার মাত্র ৩৮.২ শতাংশ প্রতিদিন গড়ে ৪২৯ মিনিট (৭ ঘন্টা এবং ৯ মিনিট) কর্মব্যস্ত থাকে। এই কর্মব্যস্ততার মধ্যে চাকরি, ব্যবসা ও অন্যান্য আর্থিকভাবে লাভজনক কাজকর্ম রয়েছে। এই কর্মব্যস্ততার মধ্যে লিঙ্গবৈষম্যও প্রচুর। পুরুষদের ৫৭.৩ শতাংশ কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত থাকলেও মহিলাদের মধ্যে মাত্র ১৮.৪ শতাংশ উপার্জনশীল। অর্থাগম হতে পারে এমন কাজে পুরুষরা গড়ে দৈনিক ৪৫৯ মিনিট বা ৭ ঘণ্টা ৩৯ মিনিট সময় দিলেও মহিলারা দেন ৩৩৩ মিনিট (৫ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট)।

ভারতীয় জীবনযাত্রায় সময়ে ব্যবহার নিয়ে এই প্রথম এমন সমীক্ষা করেছে এনএসএস। অর্থকরী কাজকর্ম ছাড়াও এমন অনেক জরুরি কাজ থাকে, যাতে অর্থাগম হয় না। কোন ধরনের কাজে কত সময় যায় এবং সেই সব কাজে পুরুষ ও মহিলাদের অংশগ্রহণের ধরনটা কেমন, তা জানতে এই সমীক্ষা হয়েছিল। মঙ্গলবার টাইম ইউজ ইন ইন্ডিয়া ২০১৯ শীর্ষক ওই সমীক্ষা রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। শহর ও গ্রাম মিলিয়ে ১ লক্ষ ৩৯ হাজার পরিবারের ৬ বছরের বেশি বয়সের ৪ লক্ষ ৪৭ হাজার জনের সঙ্গে কথা বলে তৈরি হয় রিপোর্ট। গত বছর জানুয়ারি মাস থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই সমীক্ষা হয়েছিল। রিপোর্ট অনুযায়ী, রান্না, ঘর পরিষ্কার, শিশু প্রতিপালন ও পরিবারের পরিচর্যা ইত্যাদি সাংসারিক কাজে বেশিরভাগ মহিলা (৮১.২ শতাংশ) যুক্ত থাকেন, যা থেকে তাঁদের কোনও উপার্জন হয় না। পুরুষদের মধ্যে মাত্র ২৬.১ শতাংশ ঘর-গেরস্থালির কাজ করতে অভ্যস্ত। এই ধরনের বেরোজগেরে পারিবারিক দায়দায়িত্ব পালনে পুরুষরা দৈনিক গড়ে ৯৭ মিনিট সময় দিলে মহিলারা দেন প্রায় তিনগুণ বেশি, ২৯৯ মিনিট। পরিবারের শিশু বা প্রবীণ সদস্যদের বাধ্যতামূলক পরিচর্যার কাজে সময় দেওয়ার ক্ষেত্রেও মহিলা ও পুরুষদের মধ্যে তীব্র বৈষম্য রয়েছে। পরিবারের শিশু ও বৃদ্ধদের দেখভালের মতো বেগার খাটার কাজে মাত্র ১৪ শতাংশ পুরুষ দৈনিক গড়ে ৭৬ মিনিট সময় দেন। অথচ ওই একই কাজে মহিলাদের অংশগ্রহণ পুরুষদের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ (২৭.৬ শতাংশ)। প্রতিদিন গড়ে সময় দেওয়ার ব্যাপারেও মহিলারা অনেক এগিয়ে ১৩৪ মিনিট।

- Advertisement -

সমীক্ষা থেকে স্পষ্ট, ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর কথা ভাবেন না অধিকাংশ ভারতীয়। জনসেবা বা বিনা বেতনে কাজ করার আগ্রহ তাঁদের মধ্যে বড় একটা দেখা যায় না। সোজা কথায়, দুপয়সা কামাই-এর সুযোগ না থাকলে এদেশের মানুষ চট করে কিছু করতে চান না। সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, অংশগ্রহণকারীদের মাত্র ২.৪ শতাংশ জনসেবা ও অলাভজনক কল্যাণমূলক কাজে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন। সেবামূলক কর্মকাণ্ডে ভারতীয়দের গড় দৈনিক অবদান ১০১ মিনিট। অথচ এই ভারতীয়দের ৯১.৩ শতাংশ গল্প, আড্ডা ইত্যাদিতে মজে থাকেন। এভাবে দৈনিক গড়ে ১৪৩ মিনিট নিষ্ফল সময় কাটান তাঁরা। বইপড়া, সাংস্কৃতিক কাজকর্ম, টিভি দেখা বা রেডিও শোনা এবং খেলাধুলায় যুক্ত থাকেন ৮৬.৯ শতাংশ মানুষ। এর জন্য দিনে গড়ে সময় ব্যয় করেন ১৬৫ মিনিট।