কাঠাম পুজোর মাধ্যমে শুরু শতাব্দী প্রাচীন বড়মার মূর্তি গড়ার কাজ

60

দিনহাটা: দিনহাটার শতাব্দী প্রাচীন দুর্গা পুজোগুলির মধ্যে অন্যতম মা মহামায়াপাটের দুর্গা পুজো। দিনহাটার বাসিন্দাদের কাছে যিনি বড়মা নামেই পরিচিত। পুরাতন রীতি মেনে এবছরও রথযাত্রার পূর্ণ তিথিতে কাঠাম পুজোর মাধ্যমে বড়মার মূর্তি গড়ার কাজ শুরু হল সোমবার।

প্রসঙ্গত, আনুমানিক ১৮৮৫ সালে কোচবিহারের মহারাজা নৃপেন্দ্রনারায়ণ রায়ের আমলে ডুয়ার্সের জয়ন্তী থেকে বাংলাদেশের লালমনিরহাট পর্যন্ত রেললাইন পাতার কাজ চলাকালীন দেবীর অবয়ব আঁকা একটি প্রস্তরখন্ড শ্রমিকদের নজরে পড়ে। দীর্ঘ সময় তা তোলার চেষ্টা করা হলেও সম্ভব হয়নি। পরে মহারাজা স্বপ্নাদেশ পেয়ে ওই জায়গায় প্রস্তখন্ডটিকে দেবী মহামায়ারূপে মন্দিরে প্রতিষ্ঠিত করে শুরু হয় পুজো। ১৮৯০ সালে স্থানীয় বাসিন্দারা দেবী দশভূজা রূপে পুজোর স্বপ্নাদেশ পান। সেই থেকেই মা মহামায়াপাটের পাশে অস্থায়ী মন্দির গড়ে শুরু হয় পুজো।

- Advertisement -

উদ্যোক্তরা জানান, প্রতিবছর রথযাত্রার দিন কাঠাম পুজোর মাধ্যমে বড়মার মূর্তি গড়ার কাজ শুরু করেন মৃৎ শিল্পীরা। পুজো কমিটির তরফে অসীম নন্দী, মানিক বৈদ, গৌতম সাহারা বলেন,করোনাবিধি মেনেই পুজোর আয়োজন হবে।