ভিন রাজ্য ফেরত শ্রমিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

173
ফাইল ছবি

রায়গঞ্জ: ভিন রাজ্য ফেরত শ্রমিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল রায়গঞ্জে। জানা গিয়েছে, মৃতের নাম রতন বর্মন(৪২)। তাঁর বাড়ি রায়গঞ্জ থানার ভাতুন গ্রাম পঞ্চায়েতের মরণটুলিগ্রামে। বুধবার বাড়ির অদূরে কদম গাছে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, রতন বর্মন বিহারের ছাপরা জেলায় ইটভাটায় কাজ করতেন। দু’মাস আগে লকডাউনের কারণে বাড়ি চলে আসেন তিনি। সম্প্রতি, তাঁর কাজে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। গতকাল ইটভাটার মালিক ফোন করে জানান এই মুহূর্তে ইটভাটায় কাজ হবে না। বর্ষা চলে আসায় কাজ বন্ধ থাকবে। এদিকে নিজের জেলায়ও কাজ না পেয়ে আর্থিক অনটনে ভুগছিলেন। পরিবারের দাবি, রোজগার না থাকায় মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা করেন তিনি। মৃতের ছেলের দাবি, গতকাল রাত থেকেই তাঁর বাবাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। আজ বাড়ির অদূরে একটি কদম গাছে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

- Advertisement -

এদিন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। এদিন বিকেলে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। ঘটনার তদন্ত চলছে। এই বিষয়ে ভাতুন গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ইউসুফ আলি বলেন, ‘একজনের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার খবর পেয়েছি। তাঁর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।’

অন্যদিকে, আজ দুপুরে রায়গঞ্জ থানার বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের কানাইপুর গ্রামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। মৃতার নাম শান্তনা বর্মন। তাঁর স্বামী ধনঞ্জয় বর্মন বলেন, ‘খাওয়ার দেওয়া নিয়ে আমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছিল। এরপর আমি জমিতে কাজে চলে যাই। বাড়িতে এসে দেখি শোয়ার ঘরের দরজা বন্ধ। দরজা ভেঙে স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাই।’ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।