রাজাভাত চা বাগানে চিতা বাঘের হামলায় জখম শ্রমিক

113

কালচিনি: চিতা বাঘের হামলায় এক মহিলা শ্রমিক গুরুতর জখম হলেন। সোমবার দুপুরে কালচিনির রাজাভাত চা বাগানের ঘটনা। জখম শ্রমিককে উদ্ধার করে প্রথমে লতাবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। সেখান থেকে ওই মহিলাকে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়। বাগান সূত্রে জানা গিয়েছে, চাঁদমুনি বরাইক(২৭) নামে ওই শ্রমিক এদিন অন্য শ্রমিকদের সঙ্গে বাগানের ৯ নম্বর সেকসনে চা পাতা তোলার কাজ করছিলেন। অন্য শ্রমিকদের থেকে কিছুটা দূরে চলে গিয়েছিলেন ওই শ্রমিক। তাঁকে একা দেখতে পেয়ে চা গাছের ঝোপ থেকে একটি চিতা বাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে ওই শ্রমিকের ওপর। অতর্কীত হামলায় ওই মহিলা মাটিতে পড়ে যান। তাঁর চিৎকার শুনে অন্য শ্রমিকরা ছুটে এলে চিতা বাঘটি মহিলাকে ছেড়ে পালিয়ে যায়। বাগানের অ্যাম্বুলেন্স ডেকে মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে যান শ্রমিকরা। মহিলার কানের এক পাশে চিতার থাবায় বড় ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে।

বাগানের শ্রমিকরা বলেন, ‘ওই বাগানে চিতা বাঘের হামলা নতুন কিছু নয়। এর আগে চিতার হামলার একাধিক ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু সহ বেশ কিছু শ্রমিক জখম হয়েছেন।’ বাগানের কর্মী শিবদয়াল মাহালি বলেন, ‘চিতা বাঘের হামলায় শ্রমিকদের মনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।’ বাগানের শ্রমিক নেতা নারায়ন মঙ্গর বলেন, ‘শ্রমিকদের সুরক্ষার বিষয়টি বন দপ্তরকে সুনিশ্চিত করতে হবে। আমরা বন দপ্তরে জখম মহিলার ক্ষতিপূরণের দাবি জানাব। শ্রমিক মহলে বাগানে অবিলম্বে খাঁচা বসানোর দাবি জানিয়েছেন।’ বক্সা ব্যঘ্র প্রকল্পের অধীন রাজাভাতখাওয়া রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার অমলেন্দু মাঝি বলেন, ‘খবর পেয়ে বনকর্মীরা হাসপাতালে গিয়েছেন। মহিলার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ক্ষতিপূরণ পাবেন কিনা দেখা হবে। বাগানে খাঁচা বসানোর বিষয়ে এই মুহূর্তে কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না।’

- Advertisement -