লকডাউনে নমো নমো করে পুজো হল বিদ্যেশ্বরী কালী মন্দিরে

90

গঙ্গারামপুর: লকডাউনে ভক্ত ছাড়াই পুজো হল গঙ্গারামপুরের ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন বিদ্যেশ্বরী কালী মন্দিরে। প্রথা ভেঙে বন্ধ করে দেওয়া হল মন্দির। বসল না মেলা। নিয়ম অনুযায়ী রবিবার রাতে ছিল বিদ্যেশ্বরী মায়ের পুজো। কিন্তু লকডাউনে ভক্ত ছাড়া নমো নমো করে পুজো সারা হয় মন্দিরের তরফে। বহু বছরের প্রথা ভেঙে বন্ধ রাখা হয় মন্দির। তবুও গঙ্গারামপুর সহ আশেপাশের এলাকার ভক্তরা বিদ্যেশ্বরী মায়ের কাছে পুজো দিতে আসেন। মন্দির বন্ধ থাকায় বাইরে পুজো দেন সকলে। অনেকই মানত হিসেবে পায়রা, কলার ছড়ি দিয়ে পুজো দেন।

প্রায় দেড়শো বছর আগের কথা। সে সময় পুর্নভবা নদীর স্রোতে বৈশাখ মাসে ওপার বাংলা থেকে একটি কাঠের কালী মায়ের মুখোশ ভেসে আসে বিদ্যেশ্বরী এলাকায়। সেখানকার বাসিন্দারা তুলে তা আনেন। এছাড়া সে বিষয়ে এক বাসিন্দা মুখোশটিকে পুজো করার স্বপ্নাদেশ পায়। পরবর্তীতে গ্রামের মঙ্গল কামনায় নদী থেকে তুলে আনা কাঠের কালী মায়ের মুখেশ পুজো শুরু করেন। এলাকার নাম অনুসারে কালী মূর্তির নাম দেওয়া হয় বিদ্যেশ্বরী কালী মাতা। প্রাচীন বিদ্যেশ্বরী কালী মাতার কাঠের মুখোশটির উচ্চতা প্রায় তিনফুট। চওড়া প্রায় আড়াই ফুট। বর্তমানে মায়ের মন্দিরটি পাকা হয়েছে। এবছর গ্রামবাসীরা গতকাল রাতে পুজো করলেও সোমবার থেকে ভক্তদের জন্য পুজো সহ নানা নিয়ম পালন করা হয়। প্রতিবছর পুজো ঘিরে মেলা বসলেও এবছর লকডাউন থাকায় বসেনি মেলা। বিদ্যেশ্বরী কালী পুজো ঘিরে যাতে কোনো রকম ভিড় বা মেলা না বসে সেদিকে নজর রাখতেই সকাল থেকে এলাকায় পুলিশ মোতায়ন রাখা হয়েছে।

- Advertisement -