কোটি টাকার ইয়াবা ট্যাবলেট বাজেয়াপ্ত, ধৃত ১

115
প্রতীকী

মুর্শিদাবাদ: প্রায় সাত হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করল সিআইডি ও বহরমপুর থানার পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বহরমপুরের খাগড়াঘাট স্টেশনের কাছ থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতের নাম হাসিবুল শেখ (২১)। তার বাড়ি জলঙ্গী থানার কীর্তনীয়া পাড়া গ্রামে।

সিআইডি সূত্রে খবর, শনিবার রাতে মোড়গ্রাম থেকে মোটরসাইকেল করে জলঙ্গীতে ওই ইয়াবা ট্যাবলেটগুলি নিয়ে যাচ্ছিল হাসিবুল শেখ। সেই সময় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে খাগড়াঘাট স্টেশনের কাছে সিআইডির অফিসাররা তাকে আটক করে। হাসিবুলের সঙ্গে থাকা ব্যাগ এবং মোটরসাইকেলটিতে তল্লাশি চালাতেই উদ্ধার হয় বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট। সিআইডি ও পুলিশ সূত্রের খবর, ধৃত ওই যুবক একটি মাদক পাচারচক্রের হয়ে বেশ কিছুদিন ধরে কাজ করছে। ধৃত যুবক ওই ট্যাবলেটগুলি বাংলাদেশে পাচারের পরিকল্পনা করেছিল বলে জানা গিয়েছে। সিআইডি সূত্রে জানানো হয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে ইয়াবা ট্যাবলেটগুলির মূল্য প্রায় এক কোটি টাকা।

- Advertisement -

সিআইডির এক আধিকারিক জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে ‘ক্রেজি মেডিসিন’ নামে বহুল পরিচিতি এই ট্যাবলেট মূলত ক্যাফিন ও মেথামফেটামিন নামে নিষিদ্ধ একপ্রকার ওষুধ মিশিয়ে তৈরি করা হয়। এই ট্যাবলেট আবিষ্কারের একদম প্রথম পর্বে কেবলমাত্র ঘোড়াদের খাওয়ানো হত রেসে নামানোর আগে। যাতে তারা উত্তেজিত হয়ে জোরে দৌড়োতে পারে। ‘পার্টি ড্রাগ’ হিসেবেও পরিচিত ইয়াবা ট্যাবলেট। সূত্রের খবর, এই মাদক এখনও পশ্চিমবঙ্গে তৈরি হয় না। মূলত উত্তর-পূর্ব ভারতের কিছু রাজ্য ও মায়ানমার থেকে এই মাদক পাচার হয়ে ভারতে ঢোকে। তারপর ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে। রবিবার ধৃতকে বহরমপুর সিজেএম আদালতে তোলা হয়।