উত্তরবঙ্গজুড়ে যোগ দিবস উদযাপিত

273

উত্তরবঙ্গ ব্যুরো: উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় পালিত হল আন্তর্জাতিক যোগ দিবস। করোনা আবহে সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনেই পালন করা হল দিনটি। মূলত বিজেপি নেতাকর্মী এবং সমর্থকদের উদ্যোগেই পালন করা হয় যোগ দিবসের অনুষ্ঠান। এদিন গাজোলের ৬, ৭ এবং ৮ মণ্ডল কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন জায়গায় যোগ এবং প্রাণায়াম শিবির অনুষ্ঠিত হয়। সকালে জেলা পরিষদ ৬ মণ্ডল কমিটির উদ্যোগে কদুবাড়ি মোড় এলাকায় অনুষ্ঠিত হয় যোগ দিবসের অনুষ্ঠান। উপস্থিত ছিলেন মণ্ডল কমিটির সভাপতি ঠাকুরদাস সরকার জেলা পরিষদ সদস্য সাগরিকা সরকার, পঞ্চায়েত সদস্য প্রভাস ঘোষ সহ অন্যরা। ঠাকুরদাস সরকার জানালেন, শুধু যোগ দিবসে নয় নিজেদের শরীর মনকে সুস্থ রাখতে সারাবছরই নিয়মমাফিক কিছু যোগ এবং প্রাণায়াম করা সকলেরই দরকার।

চাঁচলে প্রতিবারের মত এবারও চাঁচল রাজবাড়ির ঠাকুরবাড়িতে চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী ইনস্টিটিউশনের জাতীয় সেবা প্রকল্প বাহিনী যোগ দিবস পালন করে। রবিবার ঠিক সকাল ৬টায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং অন্যান্য নিয়ম মেনে ২৫ জনকে নিয়ে মাস্ক আন্তর্জাতিক যোগা দিবস পালিত হয়। চাঁচল যোগা সেন্টারের প্রশিক্ষক সুজন আলী যোগাসন করে দেখান। এদিন উপস্থিত ছিলেন চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী স্কুলের জাতীয় সেবা প্রকল্প আধিকারিক পার্থ চক্রবর্তী, চাঁচল থানার আইসি সুকুমার ঘোষ ও অন্যান্য পুলিশ আধিকারিক।

- Advertisement -

কুমারগ্রামে ভারত ভুটান সীমান্তে এসএসবির ৩৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক যোগা দিবস পালিত হল। কুমারগ্রাম ব্লকের ফাঁসখাওয়া, লিম্বুধুরা, ভুটানঘাট সহ সশস্ত্র সীমা বলের বিভিন্ন শিবিরগুলিতে আধিকারিক থেকে শুরু করে জওয়ানরা যোগা দিবসের কর্মসূচিতে অংশ নেন। এদিন সাত সকালে ভুটান পাহাড়ের কোলে নদী জঙ্গল ঘেরা প্রকৃতির মনোরম পরিবেশে যোগ ব্যায়াম এবং শরীরচর্চায় ব্রতী হন এসএসবএর জওয়ানরা। হালকা বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে এদিনের কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন এসএসবি-র ফালাকাটা সেক্টরের অন্তর্গত ৩৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের ইন্সপেক্টর কৃষ্ণা গুপ্তা, সাবইন্সপেক্টর বিআর গুজ্জর প্রমুখ।