নারী সুরক্ষা নিয়ে রাজ্যকে তোপ যোগীর

209

উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: মহিলাদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ রাজ্য সরকার, মালদার গাজোলে একটি সভায় অংশ নিয়ে এভাবেই তৃণমূলকে আক্রমণ করলেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি এদিন বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকার ও তৃণমূলের তীব্র সমালোচনা করেন।

বঙ্গে ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে। বাংলার মসনদ দখলে মরিয়া গেরুয়া-ঘাসফুল দুই শিবিরই। সমানতালে প্রস্তুতি চালাচ্ছে বাম-কং জোটও। সেই ইঙ্গিত মিলেছে সংযুক্ত মোর্চার ব্রিগেড সমাবেশ থেকেই। ৫ রাজ্যে ভোটের দিন ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এখনও কোনও দলই চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেনি। তবে প্রার্থী ঘোষণা না হলেও জনসভা, মিটিং-মিছিল চলছে জোরকদমে। কারণ পাখির চোখ ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচন। ভোটের ময়দানে একে অপরকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ তৃণমূল-বিজেপি। প্রায়ই দুই দলের হেভিওয়েট নেতারা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সভা করছেন। একে অপরকে আক্রমণ করছেন। জড়িয়ে পড়ছেন বাকযুদ্ধে। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য কোনও সভায় বিজেপিকে তোপ দাগলে তাঁর পালটা দিতে দেরি করছেন না শুভেন্দু অধিকারী, দিলীপ ঘোষ সহ গেরুয়া শিবিরের অন্য নেতারা। বিজেপি বাংলার মসনদ দখলে কতটা মরিয়া তা দলের শীর্ষস্তরের নেতাদের ঘন ঘন রাজ্য সফরেই প্রমাণিত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শা, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা প্রায়ই বাংলায় আসছেন, জনসভায় অংশ নিচ্ছেন। আগামী ৭ মার্চ ব্রিগেডে সভা করবেন মোদি। তার আগে মঙ্গলবার গাজোলে পরিবর্তন যাত্রার সমাপ্তি অনুষ্ঠানে যোগ দেন যোগী আদিত্যনাথ। নিজের ভাষণে তৃণমূল কংগ্রেসকে তীব্র আক্রমণ করেন যোগী।

- Advertisement -

তাঁর অভিযোগ, ’বাংলা জুড়ে অরাজকতা চলছে। এখানে দুর্গাপুজো করতে বাধা দেওয়া হয়। হিংসার ভূমি হয়ে উঠেছে বাংলা। এখানে আইনের শাসন নেই। মহিলাদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ রাজ্য সরকার। তাই বাংলায় পরিবর্তন আনতে হবে।‘

যোগীর আরও অভিযোগ, ‘বাংলায় কিষান সম্মান নিধি সহ কেন্দ্রীয় প্রকল্প চালু করতে দেওয়া হয়নি। এখানে শুধু তোষণের রাজনীতি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আত্মনির্ভর ভারতের কথা বলছেন। কিন্তু বাংলায় কুটির শিল্প ভেঙে পড়েছে।‘ যোগীর দাবি, বাংলায় লাভ জেহাদের ঘটনা ঘটছে। বাংলায় ডবল ইঞ্জিন সরকার হলে উন্নয়ন হবে বলেও এদিন জানিয়েছেন তিনি।