ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়েছেন সৌরভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : তাঁর কেরিয়ারে সাফল্য আছে। রয়েছে ব্যর্থতাও।

টিম ইন্ডিয়ার সর্বাধিনায়ক হিসেবে কখনও সাফল্যের এভারেস্টে তেরঙা উড়িয়েছেন। আবার কখনও বা নেতৃত্বের পাশে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ে বেহালার রেলের মাঠে একাকী অনুশীলন চালিয়ে গিয়েছেন। খুঁজে নিয়েছেন ফিরে আসার রাস্তা। ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়ে ফের কামব্যাক ঘটিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সঙ্গে উপলব্ধি করেছেন, সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছানোর পরও গুলি খাওয়ার জন্য মানসিকভাবে তৈরি থাকতে হবে। তাঁর দীর্ঘ ক্রিকেট কেরিয়ারে ঘটনার ঘনঘটার শেষ নেই।

- Advertisement -

২০০৫ সাল। ভারতীয় ক্রিকেটে তখন কুখ্যাত গ্রেগ চ্যাপেলের জমানা। যাঁকে টিম ইন্ডিয়ার কোচ করে এনেছিলেন অধিনায়ক সৌরভ। সেই গ্রেগের সঙ্গে পরবর্তী সময়ে মহারাজের সম্পর্কের রসায়ন কেমন হয়েছিল, সবারই জানা। আজ চ্যাপেলের নাম না করেও অতীতের পথে হেঁটেছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। জীবনের উপলব্ধি ও কামব্যাক প্রসঙ্গে তিনি আজ বলেন, জীবনে কোনও কিছুর নিশ্চয়তা নেই। সাফল্য পেলে গুলি খাওয়ার জন্য তৈরি থাকতে হবে। এটাই জীবনের নিয়ম। সবাইকেই চাপ নিয়ে কাজ করতে হয়। চাপকে দূরে সরিয়ে সফলভাবে কোনও কাজ শেষ করার মাধ্যমে দক্ষতার পরিচয় প্রমাণ করা যায়। সমাজের সব ক্ষেত্রেই এই নিয়ম প্রযোজ্য।

বর্ণময় ক্রিকেট কেরিয়ারে বহু ওঠাপড়া এসেছে। কিন্তু ভারত অধিনায়ক সৌরভ কখনও ভাবেননি নেতৃত্ব হারানোর কথা। দল থেকে বাদ পড়ার কথাও। অথচ সবই তাঁর ক্রিকেট কেরিয়ারে ঘটেছে। অবসরের দীর্ঘসময় পর অতীত নিয়ে নতুনভাবে মহারাজের মনে হচ্ছে, পেশাদার দুনিয়ায় টিকে থাকার প্রাথমিক শর্তই হল চাপকে সঙ্গে নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাওয়া। শারীরিক ও মানসিকভাবে এই লড়াইয়ে জন্য চাঙ্গা থাকতেই হবে। জীবনে সব কিছু নিয়ম মেনে চলে না।