থানার সামনে থেকে তুলে যুবতীকে ধর্ষণ! চাঞ্চল্য পেট্রাপোলে

343
প্রতীকী

ডিজিটাল ডেস্ক: যুবতীকে ভ্যানে করে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে ফেলে পালাল অপরাধীরা। এমনই অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বনগাঁর পেট্রাপোল সীমান্তে। শুক্রবার রাতে খলিদপুর এলাকার ঘটনা। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই যুবতী বনগাঁ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই যুবতীর বাড়ি বনগাঁ শহরের চাঁপাবেড়িয়া এলাকায়। পরিবারটি দিনমজুর। শুক্রবার সন্ধেবেলা আত্মীয়ের বাড়ি যাবে বলে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল ওই যুবতী। বনগাঁ থানার সামনে থেকে এক ভ্যান চালক তাঁকে বাড়ি পৌঁছে দেবে বলে ভ্যানে তুলে নেয়। অভিযোগ, ভ্যানচালক তাঁকে বাড়ি পৌঁছে না দিয়ে জঙ্গলে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তার পাশে বসে যুবতীকে কাঁদতে দেখে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে পেট্রাপোল থানায় খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে যুবতীকে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে৷ সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে সে। খবর পেয়ে শনিবার সকালে যুবতীর বাড়িতে যান বিজেপি, সিপিএম, তৃণমূলের নেতা,কর্মীরা। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।