গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবক

286
প্রতীকী

বর্ধমান: গৃহবধূকে ধর্ষণ করার পর তাঁর সোনার গয়না ও টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হল এক যুবক। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতের নাম ফজলুল হক শেখ। পূর্ব বর্ধমানের দেওয়ানদিঘি থানার জুনাড়া গ্রামের বাসিন্দা। নির্যাতিতা বধূর বাড়ি সেই গ্রামেই। দেওয়ানদিঘি থানার পুলিশ বুধবার ভোরে বাড়ি থেকে ধৃতকে গ্রেপ্তার করে। সুনির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ এদিনই ধৃতকে বর্ধমান আদালতে পেশ করে।

তদন্তের প্রয়োজনে তদন্তকারী অফিসার ধৃতকে ৩ দিন পুলিশি হেপাজতে নেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন জানান। সিজেএম সেই আবেদন মঞ্জুর করার পাশাপাশি ধৃতের মেডিকেল পরীক্ষা করানোর জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজের ফরেন্সিক স্টেট মেডিসিনের বিভাগীয় প্রধানকে নির্দেশ দিয়েছেন।

- Advertisement -

পুলিশ জানিয়েছে, ওই গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে তাঁর বনিবনা হয় না। ভরণপোষনের দায়িত্ব নেবে বলে আশ্বাস দিয়ে ফজলুল ওই গৃহবধূকে তাঁর কাছে চলে আসার জন্য বলে। গৃহবধূ তাতে রাজি হয়ে ৮৬ হাজার টাকা ও ৩ ভরি সোনার গয়না নিয়ে মাসখানেক আগে শ্বশুরবাড়ি ছাড়েন। অভিযোগ, এরপর ফজলুল ওই গৃহবধূকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে। এমনকি সে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গৃহবধূকে সাদা কাগজে সইও করিয়ে নেয়। এর কয়েকদিন পরই গৃহবধূ বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন। ফজলুল তাঁর গয়না ও টাকা হাতিয়ে নিলেও তাঁকে বিয়ে করবে না বুঝে গৃহবধূ ফের শ্বশুর বাড়িতে ফিরে এসে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।