চাকরি চলে যাওয়ায় অবসাদে মৃত্যু যুবকের! ক্ষতিপূরণ দাবি পরিবারের

129

আসানসোল: চাকরি চলে যাওয়ায় মানসিক অবসাদে ভুগে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক যুবকের। ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে আসানসোলের বার্ণপুরে। মৃত যুবকের নাম রাজেশ পাল (৩৫)। হিরাপুর থানার বার্ণপুরের শ্যামডিহি এলাকার বাসিন্দা ছিলেন তিনি। একটি বেসরকারি সংস্থা বার্ণপুর এলাকায় কুয়ো তৈরি করে মাটির তলা থেকে সিএনজি গ্যাস উত্তোলন করার কাজ করছে। সেখানেই কর্মরত ছিলেন ওই যুবক।অভিযোগ আচমকাই কাজ থেকে ছাড়িয়ে দেওয়া হয় ওই যুবকে। এদিন মৃতের আত্মীয়স্বজন ও গ্রামবাসীরা তাঁর মৃতদেহ নিয়ে ওই সংস্থার অফিসের গেটের সামনে বসে পড়েন। যুবকের পরিবারের তরফে সংস্থার কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ এবং পরিবারের আরেক সদস্যের জন্য চাকরি দাবি করা হয়।

জানা গিয়েছে, গ্যাস উত্তোলনের জন্য রাজেশের পরিবার প্রচুর জমি দেয়। সেই জমির বদলে চাকরি পেয়েছিল রাজেশ। অভিযোগ, কয়েকদিন কাজ করার পর হঠাৎ করেই তাঁকে চাকরি থেকে ছাঁটাই করা হয়। অনেক বিতর্কের পর আবার নিয়োগ করা হয়। কিন্তু পরে আবার তাঁকে কাজ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। পরিবারের দাবি, এরপর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করেছিল রাজেশ পাল। এদিন বিক্ষোভের খবর পেয়ে অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বা মিমের স্থানীয় নেতা দানিশ আজিজ ঘটনাস্থলে পৌঁছোঁন। তিনি এই ঘটনার সঠিক বিচার দাবি করেন। যদিও ওই বেসরকারি সংস্থার তরফে সানি সিং বলেন, ‘আমরা ওই যুবকের মৃত্যুর কথা জেনে দুঃখিত। সংস্থা সবসময় আইন মেনে চলে। মৃত ব্যক্তির সঙ্গে আমাদের কোনও সম্পর্ক নেই।‘

- Advertisement -