গঙ্গায় স্নান করতে নেমে তলিয়ে গেল যুবক

141

বৈষ্ণবনগর: গঙ্গায় স্নান করতে গিয়ে জলে তলিয়ে গেল এক যুবক। যুবকের নাম সুদীপ সরকার (১৯)। ভগবানপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৈষ্ণবনগরের কৃষ্ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চকবাহাদুরপুর কালীতলা গঙ্গা ঘাটে। ঘটনার পর বিপর্যয় মোকাবিলা গ্রুপের ডুবুরিরা তল্লাশি চালালেও এখনও পর্যন্ত মেলেনি যুবকের দেহ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভগবানপুর গ্রামের  সুদীপ সরকার তাঁর ঠাকুমা ও এক বোনকে সঙ্গে নিয়ে চকবাহদুরপুর গ্রামে গিয়েছিল আধার কার্ড সংশোধন করার জন্য। কিন্তু সংশোধনের লাইন ছিল বিশাল বড়। তাই বোন ও ঠাকুমাকে লাইনে দাঁড় করিয়ে সে চলে যায় চকবাহাদুরপুর গ্রামের কালিতলা গঙ্গা ঘাটে স্নান করার জন্য। নদীতে নেমে ডুব দেওয়ার পরই সে আর উঠে আসেনি। বিষয়টি ওই গ্রামের লোকজনের নজরে আসার পর হইচই পড়ে যায় এলাকায়। স্থানীয়রা নৌকা নিয়ে গঙ্গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। খবর পেয়ে বৈষ্ণবনগর ব্লকের প্রশাসনিক আধিকারিকরা ওই গঙ্গা ঘাটে উপস্থিত হন। তারপর ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের তরফে তল্লাশি শুরু করা হয়। তবে, মেলেনি তাঁর দেহ।

- Advertisement -

যুবকের বাবা সঞ্জীব সরকার বলেন, ‘গঙ্গায় ডুব দেওয়ার পরেই ছেলে আর উঠে আসেনি। ডুবুরি দিয়ে সারাদিন খোঁজা হচ্ছে কিন্তু কোথাও সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না।‘

ওই গ্রামের গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য গ্রাম কুমার মণ্ডল বলেন, ‘সারাদিন গঙ্গায় তল্লাশি চালানো হয়েছে। কিন্তু দেহ পাওয়া যাচ্ছে না। রাত পর্যন্ত তল্লাশি চালাবার জন্য আমরা জেনারেটরের ব্যবস্থা করেছি।‘ বৈষ্ণবনগর থানার আইসি নিম শেরিং ভুটিয়া বলেন, ‘সন্ধ্যা পর্যন্ত দেহ খুঁজে পাওয়া যায়নি। ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট দলকে আমরা নিয়ে এসেছি তল্লাশি চলছে।‘