গাড়ির ধাক্কায় তিন ফুটপাতবাসীর মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার যুবক

297

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: গাড়ির ধাক্কায় তিন ফুটপাতবাসীর মৃত্যুর ঘটনায় মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হল এক যুবককে। ধৃতের নাম মানোয়ার শেখ। তার আদি বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোট থানার নিগনে। বর্তমানে ওই যুবক বর্ধমান থানার দুবরাজদিঘির স্কুলপাড়ায় বসবাস করতেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছিল গত ৬ নভেম্বর রাতে। সেদিন বর্ধমান স্টেশন লাগোয়া ওভারব্রিজের নীচে দুই মহিলা ও এক বৃদ্ধ ঘুমিয়েছিলেন। রাত ১১টা ৪৫মিনিট নাগাদ ওভারব্রিজ থেকে একটি গাড়ি দ্রুত গতিতে এসে তিনজনকে ধাক্কা মারে। ঘটনার পরই চালক গাড়ি চালিয়ে পালিয়ে যায়। জখমদের উদ্ধার করে স্থানীয় বাসিন্দারা বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক দু’জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে হাসপাতালেই মারা যান অপর জখম মহিলা।

- Advertisement -

এই মর্মান্তিক ঘটনার পর বর্ধমানের হটুদেওয়ান পিরতলার এক বাসিন্দা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। তদন্তে নেমে পুলিশ এলাকার ১৮টি সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে। তা থেকে জানা যায়, ঘাতক গাড়িটি শহরের জেলখানা মোড়ের একটি বারের দিক থেকে এসেছিল। ওই বারে গিয়ে পুলিশ পেমেন্টের তথ্য সংগ্রহ করে। তার থেকে পুলিশ জানতে পারে এটিএম কার্ড ব্যবহার করে বারে পেমেন্ট করা হয়েছিল। এটিএমের তথ্য ধরে পুলিশ ঘটনায় মানোয়ারের জড়িত থাকার বিষয়ে নিশ্চিত হয়। পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ঘটনার তেমন কোনও তথ্য ছিল না। ১৮টি সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে কিছু তথ্য মেলে। সেই সূত্র ধরে ঘটনায় মানোয়ারের জড়িত থাকার বিষয়টি জানা যায়। এরপরই খোঁজ চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এটা পুলিশের সাফল্য।’ এদিন ধৃতকে বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তার গাড়িটিও। সিজেএম সুজিত কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় ধৃতকে ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।