উত্তপ্ত সিতাই, রাজনৈতিক সংঘর্ষে মৃত ১

82

সিতাই: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের জেরে এক যুবকের মৃত্যু হল সিতাই বিধানসভার পেটলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার জামাদারবসে। মৃত যুবক বিজেপির দলীয় কর্মী বলে দাবি করে বিজেপির তরফে অভিযোগ করে জানানো হয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের আক্রমণে তার মৃত্যু হয়েছে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। ঘটনায় উত্তপ্ত এলাকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় মোতায়েন রয়েছে দিনহাটা থানার পুলিশ বাহিনী।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার জামাদারবস এলাকায় তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। ঘটনার রেশ ছড়িয়ে পড়ে পেটলায়। ঘটনার জেরে উভয়পক্ষের মোট ছয়জন গুরুতর জখম হন। জখমদের দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক এক যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃতের নাম হারাধন রায় (৩০)।

- Advertisement -

যুবকের মৃত্যু প্রসঙ্গে বিজেপির স্থানীয় মণ্ডল সভাপতি দিবাকর রায় বলেন, ‘তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের আক্রমণে আমাদের এক দলীয় কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। আরও দু’জন কর্মী আহত হয়েছেন। অন্যদিকে, অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণকান্ত বর্মন বলেন, ‘যে কোনও মৃত্যুই দুঃখজনক।বিজেপির দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ হচ্ছিল। সেই সংঘর্ষের জেরে আচমকাই আমাদের দলের স্থানীয় তিনজন কর্মীও জখম হন। এক্ষেত্রে তৃণমূলের ওপর মিথ্যা অভিযোগ চাপানো হচ্ছে।’

ওই যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় বিজেপির তরফে তৃণমূলকে দায়ী করা হলেও মৃতের মা ভারতীবালা রায় অবশ্য জানান, কারা তাঁর ছেলেকে মেরেছেন তা তিনি জানেন না।