যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

249

হেমতাবাদ: বিয়ের দু’মাসের মাথায় যুবকের গলায় ফাঁস লাগানো দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটে হেমতাবাদ থানার নওদা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাহাড়াইল সংলগ্ন আটরোই গ্রামে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম জুয়েল মহম্মদ। ভিন রাজ্যে ঠিকাদারের কাজে কর্মরত ছিলেন তিনি। মাস দুয়েক আগে রায়গঞ্জ থানার শেরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত, খলসি গ্রামের বাসিন্দা সুফিয়া বেগমের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। মৃতের বাবা আব্দুল হক বলেন, ‘এদিন সকালে বাজার করে বাড়ি ফিরে এসে শোয়ার ঘরের দরজা বন্ধ করে শুয়ে পড়েন জুয়েল। সেই সময় সবাই মাঠে কাজ করছিলাম। হঠাৎ নববধূর চিৎকারে ছুটে এসে প্রতিবেশীরা ঘরের জানালা ভেঙে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান।’ খবর যায় হেমতাবাদ থানায় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এদিন বিকেলে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে খুন না আত্মহত্যা কিভাবে এই ঘটনা ঘটল তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে হেমতাবাদ থানার পুলিশ। হেমতাবাদ থানার এক পুলিশ আধিকারিক জানান, একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত চলছে।

- Advertisement -