শিলিগুড়ি, ১১ অক্টোবরঃ ভুয়ো নথিপত্র নিয়ে ডাক্তারিতে ভরতি হয়েছিল এক যুবক। এরপর ক্লাস করতে গিয়ে জাল নথিপত্র সহ উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে ধরা পড়ে গেল অভিজিৎ সিনহা। মেডিকেল ফাঁড়ির পুলিশ আটক করেছে শিলিগুড়ির শীতলাপাড়া এলাকার বাসিন্দা ওই যুবকে।

মেডিকেল কলেজ ও পুলিশ সূত্রে খবর, আজ দুপুরে ওই যুবক একটি চিঠি ও কিছু কাগজপত্র নিয়ে অধ্যক্ষের কাছে আসে। সে দাবি করে, এমবিবিএসে প্রথম বর্ষের প্রথম সেমিস্টারে ভরতি হয়েছে সে। কাগজপত্রগুলো দেখে অধ্যক্ষের সন্দেহ হওয়ায় পুলিশ খবর দেন তিনি। ঘটনাস্থলে পৌঁছান কলেজের স্টুডেন্টস অ্যাফেয়ার্স বিভাগের ডিন ডাঃ সন্দীপ সেনগুপ্ত। পুলিশের জেরায় ওই যুবক জানায়, শিলিগুড়ির বাঘাযতীন পার্কের পাশে একটি প্রতিষ্ঠানে ৭৬ হাজার টাকা দিয়ে এমবিবিএসে ভরতি হয়েছে সে। সেখান থেকে তাকে কয়েকটি নথি দিয়ে মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছিল। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।