কাজ ফিরে পাওয়ার দাবিতে রেঞ্জ অফিসের সামনে অনশনে যুবক

439

আলিপুরদুয়ার: কাজ ফিরে পাওয়ার দাবিতে বনদপ্তরের রেঞ্জ অফিসের সামনে অনশনে বসল এক যুবক। এছাড়া কাজে স্থায়ী করনের দাবি করা হয়েছে। বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের দমনপুর রেঞ্জে দিনমজুর হিসেবে সাত বছর ধরে কাজ করছিলেন বিশ্বদীপ মণ্ডল নামে ওই যুবক। সাত বছর ধরে একটানা কাজ করলেও নতুন করে বনসহায়ক পদে কর্মী নিয়োগ হওয়ার এক সপ্তাহ আগেই বনদপ্তর ওই যুবককে ছাঁটাই করে দেয় বলে অভিযোগ। বর্তমান পরিস্থিতিতে কয়েক মাস ধরে কাজ হারিয়ে বয়স্ক বাবা-মাকে নিয়ে চরম সমস্যায় পড়েছে ওই যুবক।

অভিযোগ, বনদপ্তর প্রতিশ্রুতি দিলেও কাজে স্থায়ী না করে উলটে কাজ থেকে ছাঁটাই করে দেয়। তাই বাধ্য হয়ে অনশন অবস্থান বেছে নেন। ইতিপূর্বে একইরকমভাবে চার যুবক মিলে কাজ ফিরে পাওয়ার পাশাপাশি স্থায়ীকরণের দাবিতে অনশন করেছিলেন। ফের শুক্রবার থেকে বিশ্বদীপ মণ্ডল নামে বছর ২৮-এর ওই যুবক একাই বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের দমনপুর ইস্ট রেঞ্জ অফিসের সামনে অনশন অবস্থানে বসেছেন। কাজ ফিরে না পাওয়া পর্যন্ত ওই যুবক অনশন চালিয়ে যাবেন বলে জানান। সেখানে গিয়ে দেখা যায়, দমনপুর রেঞ্জ অফিসের সামনে ওই যুবক একাই অনশন অবস্থানে বসেছেন। তাঁর বামদিকে রয়েছে জাতীয় পতাকা এবং পিছনে একাধিক প্ল্যাকার্ড ঝোলানো রয়েছে।

- Advertisement -

এদিন বিশ্বদীপ মণ্ডল বলেন, ‘গত ৭ বছর ধরে কাজ করার পরেও আমাকে কাজ থেকে বাদ দেওয়া হলো কেন?  বাড়িতে বয়স্ক বাবা-মা রয়েছে। কাজ না থাকলে তাদের মুখে খাবার তুলে দেব কিভাবে? তাই দমনপুর রেঞ্জ অফিসের সামনে অনশন অবস্থানে বসেছি।’

দমনপুর ইস্ট রেঞ্জের রেঞ্জার সুজিত কুমার বর্মা বলেন, ‘বিশ্বদীপ মণ্ডল নামে ওই যুবক বনসহায়কের চাকরি চাচ্ছেন। বিষয়টি উপর মহলে জানানো হয়েছে।’