প্রাপ্য অর্থ না মেলায় পথ অবরোধে জমিদাতা কৃষকেরা

81

বর্ধমান: রাস্তা তৈরির জন্য সরকার ৪৬ বছর আগে চাষিদের জমি অধিগ্রহণ করলেও এখনও মেটায়নি জমির মূল্য। অবিলম্বে সেই অর্থ পরিশোধের দাবিতে বুধবার পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের আমারুন ২ পঞ্চায়েত এলাকার আড়াইশো কৃষক পরিবারের সদস্যরা ভাতারের কুবাজপুর মোড়ে পথ অবরোধ করেন। এই খবর পেয়ে ভাতার থানার পুলিশ ও ব্লক প্রশাসনের কর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছোয়। পুলিশ ও প্রশাসনের আশ্বাসে কৃষক পরিবারের সদস্যরা এদিনের মত অবরোধ বিক্ষোভ তুলে নেন। তবে দ্রুত দাবি পুরণের ব্যবস্থা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন আমারুনের কৃষকরা। পথ অবরোধ বিক্ষোভে অংশ নেওয়া ভাতারের আমারুন-২ পঞ্চায়েত এলাকার কৃষক নজরুল ইসলাম বলেন, রাস্তা তৈরির জন্য প্রায় ৪৬ বছর আগে এলাকার আড়াইশো কৃষকের দেড়শ বিঘা জমি অধিগ্রহণ করে সরকার।

অধিগৃহীত সেই জমির মূল্য কোটি টাকারও বেশি। এখনও পর্যন্ত কোনও কৃষককেই জমির মূল্য দেওয়া হয়নি। সরকার এ বিষয়ে তাদের শুধু আশ্বস্ত করে গিয়েছে। কিন্তু টাকা আর তাদের কাছে এসে পৌঁছোয়নি। নজরুল বাবু বলেন, বর্তমানে সরকার কি ক্ষতিপূরণ দেবে, কবে দেবে তাও কারও জানা নেই। এই অবস্থায় জমির মূল্য অবিলম্বে মেটানোর দাবিতে তাঁরা আড়াইশো কৃষক পরিবারের সদস্যরা মিলে এদিন পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে বাধ্য হয়েছেন। পথ অবরোধে অংশ নেওয়া অপর কৃষকরা বলেন, ‘জমির মূল্য পাওয়ার ব্যাপারে ভাতার থানার ওসি প্রণব কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিডিও তপন সরকার এদিন ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন। প্রশাসনের কর্তাদের আশ্বাস মেনে তাঁরা এদিন পথ অবরোধ তুলে নিয়েছেন। কিন্তু প্রশাসনের কর্তারা কথা মত কাজ না করলে বৃহত্তর আন্দোলন শুরু করবেন কৃষকরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

- Advertisement -